এইচ.এস.সি. পরীক্ষা শেষ হবার আগেই শুরু হয়ে যায় এযাবতকালের সবচেয়ে বড় যুদ্ধ। যাতে অংশ নেয় লাখ লাখ শিক্ষার্থী। সবার একটি মাত্র উদ্দেশ্য আর তা হল পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর পরীক্ষায় নিজেকে সফলভাবে উত্তীর্ণ করা। কিন্তু যদি এমনটি না হয়?

অনেকেই আছেন যারা ভাবেন পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি হতে না পারলে জীবনের সবকিছুই মিথ্যা। তারা সবসময় এ নিয়েই চিন্তিত থাকেন যে, তাদের কেউ সম্মান করবে না, তাদের নিয়ে মানুষ পিছনে পিছনে অনেক কথা বলবে। আবার এও ভাবেন, তারা জীবনে কখনো ভাল চাকরিও করতে পারবেন না। এসবের মানে করলে একটা জিনিসই শুধু দাঁড়ায়, আর তা হল আমাদের সমাজ আমাদের পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয় ছাড়া বাঁচার পথ দেখাতে পারে না। অথচ পথের কিন্তু শেষ নেই!

 

এবারে দেখে নেয়া যাক, যারা স্নাতক পর্যায়ে পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি হতে পারেননি, তাদের জন্য ভবিষ্যতে কি কি পথ খোলা আছে।

 

১। MBA, IBA (DU): ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনে ইন্সটিটিউট অব বিজনেস এডমিনিস্ট্রেশন ( আই বি এ) থেকে একটি এম বি এ ডিগ্রী অর্জন করতে পারলে আপনি তাদের থেকে অনেক বেশি এগিয়ে থাকবেন যারা স্নাতক পর্যায়ে আপনাকে টপকে একটি পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি হয়েছিল। আপনি যে গ্রুপ বা যে বিষয়েই স্নাতক করুন না কেন, আই বি এ আপনার জন্য দুয়াব খোলা রেখে দিয়েছে।

 

২। CFA: Chartered Financial Analyst অথবা CFA বিশ্বের অন্যতম একটি জনপ্রিয় প্রফেশনাল ডিগ্রী। আপনার অবগতির জন্য জানিয়ে রাখা ভাল যে, আমাদের এই বাংলাদেশে CFA পাশ করা হাতে গোনা কয়েকজনই রয়েছেন। তাই বলে ভয় পাবেন না। মানুষ জানে না বলেই এসব নিয়ে পড়াশোনার চিন্তা কখনো করে না। কিন্তু আপনি এখন জেনেছেন। সুতরাং, আপনার স্নাতক শেষে যদি এই ডিগ্রীটি অর্জন করতে পারেন, তাহলে আপনাকে আটকে রাখার সাধ্য কারও নেই। আর যদি আপনি চাকরির কথাই চিন্তা করে থাকেন, তাহলে বলতে হবে এই ডিগ্রীটি থাকলে আপনি চাকরির পিছনে নয়, চাকরি আপনার পিছনে দৌড়াবে নিঃসন্দেহে।

 

৩। CA: Chartered Accountants (CA) বাংলাদেশের আরেকটি স্বনামধন্য প্রফেশনাল ডিগ্রী। The Institute of Chartered Accountants of Bangladesh (ICAB) এই ডিগ্রীটি প্রদান করে থাকে। এটিও এমন একটি ডিগ্রী, যা অর্জন করে আপনি যে কোন প্রতিষ্ঠানের একজন কর্তা-ব্যক্তির পর্যায় চলে যেতে পারেন। এই ডিগ্রীর ক্ষেত্রেও আপনাকে চাকরির কথা চিন্তা করতে হবে না।

 

৪। CMA: Cost and Management Accounting বা CMA ডিগ্রী প্রদান করে থাকে The Institute of Cost and Management Accountants of Bangladesh (ICMAB). এটিও একটি প্রফেশনাল ডিগ্রী। এধরনের একটি ডিগ্রী নিয়ে আপনি হয়ে যেতে পারেন যেকোনো প্রতিষ্ঠানের চিফফাইনেন্সিয়াল অফিসার বা সিএফও। এমনকি একটি প্রতিষ্ঠানের সিইও হবার যোগ্যতাও এই ডিগ্রীর মাধ্যমে পেয়ে যেতে পারেন নিঃসন্দেহে।

 

৫। দেশের বাইরে উচ্চতর শিক্ষা:দেশের বাইরে শিক্ষার কথা শুনলেই অনেকের বুকে কাঁপুনি শুরু হয়। অনেকে আবার এই বিষয় নিয়ে কথা শুরু হলেই দূরে সরে যান। কিন্তু আপনি কি জানেন, অনেক দেশের অনেক স্বনামধন্য বিশ্ববিদ্যালয় আপনাকে পড়াশোনার সুযোগ করে দিতে সর্বদা প্রস্তুত? ওদের প্রয়োজন শুধু আপনার মেধা আর ধৈর্য। আপনি অনায়াসেই বড় ধরনের বৃত্তি নিয়ে এসব বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়তে পারেন। এসবের জন্য আপনাকে একটু চোখ-কান খোলা রেখে পরিকল্পনা করে এগোতে হবে। তাহলেই আপনি পেয়ে যাবেন আপনার স্বপ্নের বিশ্ববিদ্যালয়ের খোঁজ।

 

পৃথিবী এখন অনেক স্মার্ট। এই যুগেও যদি আমরা পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি হতে না পেরে নিজেকে অন্য সকল কিছু হতে গুটিয়ে নেই, তাহলে আমরা এই স্মার্ট পৃথিবীর স্মার্ট বাসিন্দা হব কি করে? একবার পিছিয়ে পড়েছেন তো কি হয়েছে? আপনার জন্য অগণিত পথ খোলা রেখে দিয়েছে এই পৃথিবী। শুধু দরকার ধৈর্য আর সঠিক পরিকল্পনা।