বাজি রেখে বলা যায়, ‘আমার জীবনের লক্ষ্য’ শীর্ষক রচনা লিখিনি আমাদের মাঝে এমন কোনো ছাত্র খুঁজে পাওয়া অসম্ভব। ছোট বেলায় আমরা যখন জীবনের লক্ষ্য রচনা লিখতাম, আমাদের প্রায় সবাই চিকিৎসক, প্রকৌশলী কিংবা পাইলট হতে চাইতাম, তাই না? কিন্তু এখনো কি আমরা তাই চাই? অনেকেই হয়তো জেনে গিয়েছেন চিকিৎসক বা প্রকৌশলী হবার জন্য কোনো ইচ্ছাই নেই এখন তাদের| অনেকে তো জীবনের লক্ষ্য বা একটি ক্যারিয়ার খুঁজে নিয়ে সেটা অর্জনের জন্য ইতোমধ্যে উঠেপড়ে লেগেছেন| আবার, অনেকেই আছেন ভাবনার সাগরে হাবুডুবু খাচ্ছেন এখনো নিশ্চিত হতে না পেরে আসলে কোন ক্যারিয়ারটি পছন্দ করলে ভালো হবে| আপনি যদি এখনো আপনার জন্য সঠিক ক্যারিয়ারটি খুঁজে নিতে দ্বিধার মাঝে থাকেন, তাহলে পড়তে থাকুন এবং জেনে নিন কিভাবে বাছাই করবেন আপনার স্বপ্নের ক্যারিয়ার|

 

. নিজের আগ্রহ, উদ্দীপনা এবং উৎসাহকে প্রাধান্য দিন

কোন কাজটি করতে স্বভাবগতভাবেই আপনি বেশি আগ্রহ, উদ্দীপনা এবং উৎসাহবোধ করেন? নিজেকে প্রশ্ন করুন| যে কাজটি করতে আপনি ভালোবাসেন, সেটিকেই যদি ক্যারিয়ার বানানো যায়, তাহলে এর চেয়ে ভালো কিছু আর বোধহয় হতে পারে না| যেই কাজ করে আপনি স্বস্তি পাবেন না, যেই কাজকে ভালোবাসতে পারবেন না, সেই কাজ করে আপাতত ভালো উপার্জন করতে পারবেন হয়তো| কিন্তু, মন থেকে আগ্রহ আসবেনা যেই কাজে, সে কাজ করে সাফল্য অর্জন করা অসম্ভব|

 

. কোন কাজটা আপনি ভালো পারবেন তা খুঁজে বের করুন

হয়তো আপনি কোন নির্দিষ্ট একটি কাজ সম্পর্কে অনুভূতি অনুভব করেন না, এমন হতে পারে যে একাধিক কাজের জন্য আপনার আগ্রহ, উদ্দীপনা এবং উৎসাহ কাজ করছে| আর তাই হয়তো সিদ্ধান্ত নেয়া আরো কঠিন হয়ে পড়ছে ঠিক কোন ক্যারিয়ার বেছে নিবেন| এই যদি হয়ে থাকে আপনার অবস্থা, তাহলে প্রথমে আপনার কোন কোন দক্ষতা আছে তা খুঁজে বের করুন। খুঁজে খুঁজে বের করুন আপনার কমফোর্ট জোন, যেখানে ক্যারিয়ার গড়লে আফসোসও করতে হবে না আবার সাফল্য পাওয়াটাও কঠিন হবে না|

 

. ব্যক্তিত্ব পরীক্ষা এবং ক্যারিয়ার কুইজে অংশগ্রহণ করুন

এরপরেও যদি নির্ধারণ করতে না পারেন কোন ক্যারিয়ারটি বেছে নিবেন, আপনার ব্যক্তিত্ব সম্পর্কে চিন্তা করুন এবং ক্যারিয়ার সংক্রান্ত কুইজে অংশগ্রহণ করুন| নিজের ব্যক্তিত্ব ঠিক কোন ধরণের ক্যারিয়ার মানানসই হবে, তা জেনে নিয়ে সেখান থেকে একটি ক্যারিয়ার পছন্দ করে ফেলুন| ব্যক্তিত্ব যাচাই এবং ক্যারিয়ার নির্ধারণ করার জন্য আছে বিভিন্ন অনলাইন পরিষেবা| ব্যক্তিত্ব যাচাই করার সবচেয়ে উল্লেখযোগ্য পরীক্ষা হলো মায়ের্স ব্রিগস পার্সোনালিটি টেস্ট (http://www.myersbriggs.org/)| ক্যারিয়ার কুইজ আপনার আগ্রহ, যোগ্যতা, দক্ষতা, মূল্যবোধ বা ব্যক্তিত্বের বৈশিষ্ট্যগুলির সাথে সামঞ্জস্যপূর্ণ একটি ক্যারিয়ার বেছে নিতে সহায়তা করে। এই লিংকে (https://www.thebalance.com/free-online-career-tests-১৩৫৮০৩৫) খুঁজে পাবেন ১০ টি ক্যারিয়ার সংক্রান্ত কুইজে অংশগ্রহণ করার সুযোগ| এছাড়াও এখানে (https://www.princetonreview.com/quiz/career-quiz)  এবং এখানেও (https://www.whatcareerisrightforme.com/career-aptitude-test.php) পাবেন আরো দুটি নির্ভরযোগ্য ক্যারিয়ার কুইজের সন্ধান|

 

. একজন যোগ্য ক্যারিয়ার পরামর্শদাতা খুঁজে নিন

আমাদের সবারই একজন ক্যারিয়ার গাইড, কোচ বা পরামর্শদাতা খুঁজে নেয়া প্রয়োজন| নিজে নিজে সিদ্ধান্ত নিতে না পারলে, অভিজ্ঞ কারো পরামর্শ নেয়ার বিকল্প নেই| একজন ক্যারিয়ার পরামর্শদাতা আপনার পছন্দ-অপছন্দ, যোগ্যতা, দক্ষতা এবং কর্মক্ষমতা ইত্যাদি বিশ্লেষণ করে আপনাকে সাহায্য করতে পারেন সঠিক ক্যারিয়ার পথের সন্ধান দিতে| এই পরামর্শদাতা হতে পারেন পরিবারের চেনা পরিচিত গুরুজন অথবা ক্যারিয়ারে সাফল্য পেয়েছেন এমন কোনো গুণীজন| আবার ক্যারিয়ার সংক্রান্ত পরামর্শ গ্রহণের জন্য পেশাদারি ব্যক্তি বা প্রতিষ্ঠানের শরণাপন্ন হতে পারেন| তবে সেক্ষেত্রে কিন্তু মোটা অঙ্কের টাকা গুনতে হতে পারে|

 

ক্যারিয়ার বাছাই করার জন্য সময় নিন| অনেকেই যেমন ক্যারিয়ার বাছাই করতে যেয়ে বিড়ম্বনার সম্মুখীন, অনেকেই কিন্তু ভুল ক্যারিয়ার বাছাই করে পস্তাচ্ছেন| তাই, ক্যারিয়ার বাছাইয়ে অতিরিক্ত সাবধানী হউন| তবে, খেয়াল রাখবেন ক্যারিয়ার বাছাই করতে আবার যেন খুব বেশি দেরিও না হয়ে যায়| এই প্রতিযোগিতার যুগে, ক্যারিয়ারে পিছিয়ে পড়ার অবকাশও তো নেই, তাই না?

 

সুত্র

https://lifehacker.com/top-10-ways-to-find-your-career-path-1628537579

https://www.wikihow.com/Decide-on-a-Career-Path